বুদ্ধিজীবীদের সম্পর্কে - Robiur
My name is Robiur, everybody calls me 'Roby'. I'm from India. I was born on 13 of June, in 1993. From my childhood, I was a bit different from others girls/boys, as told by my Mummy. Unfortunately, my father had died in 2003, when I was only 10 years old. Being poor, I was admitted to a mission school named "Mulnivasi Mission". I studied there for six years. After this my real life started to move forward. As , from my early life, I was interested in English language and literature, I tried to improve my study. In 2010, I was selected as a teacher in the same school. Now my life is going normally with my learning and teaching. I love to do something for the my society. So, I'm connected with a Social Reforming Organization. Travelling is my interested hobby; besides, I love attending to social conferences and cultural ceremonies, delivering speeches on different subjects; I also like writing, reading articles and being with learned persons. Actually, I wanna serve my life for my society; especially, for the poor and backward section of the society. With this intention, I'm building my personality. Hope my goal be successful by the grace of my Creator.

  

বুদ্ধিজীবীদের সম্পর্কে

*************************************
       ★    একটি সমাজের সামগ্রিক উন্নয়ণের জন্য জরুরী শর্ত হল সেই সমাজের বুদ্ধিজীবী ( intellectual ) ব্যক্তিগণের সততা ও নিষ্ঠাপূর্ণভাবে দায়্ত্বশীল হওয়া৷

         ★    প্রায়শঃ দেখা যায় যে, শিক্ষিত সমাজের বৃহত্তর অংশ গবেষণামূলক এবং  সমাজ সংস্কারমূলক গভীর পড়াশুনায় অমনোযোগী৷ আর যাঁরা কিছুটা পড়াশুনা করেন তাঁদের মধ্যে অনেকেই সমাজ সংস্কার বলতে ঠিক কি তা বুঝে উঠতে পারেননা৷ আর অল্প যে কয়েকজন উচ্চশিক্ষিত ও পাণ্ডিত্যপূর্ণ ব্যক্তিগণ সমাজ সংস্কারের গভীরতা বুঝতে পারেন তাঁরা সেই বিষয়টিকে আলোচনা করে  সমাজের বুদ্ধিজীবী মহলের নিকট উত্থাপন করতে চান না৷

       ★    এই বুদ্ধিজীবী ( intellectual ) ব্যক্তিগণের মধ্যে যাঁরা সমাজ সংস্কার  বিষয়টির গভীরে পৌঁছতে পারেন তাঁরা বিষয়টিকে অন্যান্য বুদ্ধিজীবীদের সামনে প্রকাশ না করার কারণ হল একটাই৷ তা হল এই যে —
ঐ সমস্ত বুদ্ধিজীবীগণ প্রকৃত পক্ষেই অসৎ  ( dishonest ) ৷ কারণ ঐ সকল পণ্ডিত ব্যক্তিগণ জানেন যে এই কাজে ঝুঁকি ( risk) আছে৷ ঐ সমস্ত পণ্ডিতগণ যদি বিষয়টি নিয়ে আলাপ-আলোচনা ও পর্যালোচনা করেন তাহলে অন্যান্য শিক্ষিত মানুষরা ঐ সমস্ত  intellectual ব্যক্তিদের নিকট সমাজের দায়-দায়িত্ব নেওয়ার জন্য প্রস্তাব জানাবে৷ আর পণ্ডিত ব্যক্তিগণ দায়িত্ব এড়িয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যেই বিষয়টি গোপন করার প্রচেষ্টা চালাতে থাকেন৷ এটাই হল অসৎ হওয়ার বাস্তব লক্ষণ৷ ঐ পণ্ডিত বা বুদ্ধিজীবীগণ দায়িত্ব গ্রহণ না করলে সাধারণ অশিক্ষিত বা শিক্ষিতদের দ্বারা এই সমাজ সংস্কারের কাজ করা সম্ভব নয়৷

       ★     একদিকে অল্প শিক্ষিত মানুষরা বিষয়টি বুঝে উঠতে পারেন না আর অন্যদিকে যাঁরা বুঝে উঠতে পারেন তাঁরা ব্যক্তিগত সুখ-স্বাচ্ছন্দ ত্যাগ করে বৃহত্তর সমাজের কল্যাণের জন্য দায়-দায়িত্ব নিজ স্কন্ধে চাপিয়ে নিতে একেবারেই অনিচ্ছুক৷ উপরোক্ত কারণসমূহের জন্যই আজ মুসলমান সমাজ হোক বা শূদ্র-অস্পৃশ্য-আদিবাসী সমাজ হোক উন্নয়ণ থেকে বহুদূরে অবস্থান করছে৷ আর এর জন্য দায়ী আর কেউ নন শুধুমাত্র পাণ্ডিত্বপূর্ণ ও নিষ্ঠাহীন মূলনিবাসী সমাজের,  মুসলমান সমাজের দায়িত্বহীন ব্যক্তিত্বহীন নেতা-নেতৃবৃন্দ৷ এই জন্য এই চরিত্রের পণ্ডিতদেরকে ও অস্বীকার করতে হবে বা বয়কট করতে হবে তবেই আমাদের মত অসহায় মানুষদের সামগ্রিক উন্নতি হবে৷


<--  The End  ‐‐>

If you like this post, please don't forget to share it with others.
अच्छा लगे तो शेयर करना ना भूलें!
লেখাটি ভালো লাগলে, শেয়ার করতে ভুলবেন না।

Share